এমপা কিভাবে কাজ করে?

ফার্মাকোলজি

এমপা
এম্পাগ্নিফ্লোজিন হচ্ছে একটি সোডিয়াম গ্লুকোজ কো-ট্রান্সপোর্টার ২ (SGLT-2) বাঁধা প্রদানকারী। SGLT-2 বৃত্তের গ্লুকোজ রক্তে পুনরায় শোষণের জন্য প্রধান পরিবাহক। SGLT-2 কে বাঁধা প্রদানের মাধ্যমে এম্পাপ্লিফ্লোজিন বৃত্তের পরিত্রাবিত গ্লুকোজের পুনঃশোষণ কমায় ও বৃত্তের গ্লুকোজের সরবরাহ সীমা কমায় এবং এভাবে প্রস্রাবের মাধ্যমে গ্লুকোজ নিষ্কাশনকে ত্বরান্বিত করে।

বিষয়বিস্তারিত
বাণিজ্যিক নামএম্পা ১০
জেনেরিকEmpagliflozin
ধরণক্যাপসুল
পরিমাপ10mg
চিকিৎসাগত শ্রেণিSodium-glucose Cotransporter-2 (SGLT2) Inhibitors
উৎপাদনকারীNIPRO JMI Pharma Ltd
উপলভ্য দেশBangladesh
এমপা কিভাবে কাজ করে?

নির্দেশনা

এম্পাপ্লিফ্রোজিন- প্রাপ্তবয়স্ক টাইপ-২ ডায়াবেটিস মেলাইটাস রোগীদের গুকোজ নিয়ন্ত্রণ ভালো করার জন্য আহার ও ব্যায়াম এর সম্পূরক হিসেবে নির্দেশিত। – প্রাপ্তবয়স্ক টাইপ-২ ডায়াবেটিস মেলাইটাস রোগীদের হৃদরোগ এবং হৃদরোগের মৃত্যু ঝুঁকি কমাতে নির্দেশিত।

এমপা এর অনুমোদিত সেবনমাত্রা ১০ মিঃগ্রাঃ দিনে একবার, সকালে খাবারের সাথে অথবা খাবারছাড়া। প্রয়োজনে দৈনিক মাত্রা ২৫ মিঃগ্রাঃ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা যেতে পারে। যে সকল রোগীরহাইপোভলিমিয়া আছে তাদের ক্ষেত্রে এম্পাগ্নিফ্লোজিন দেয়ার আগে অবস্থার উন্নতির পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

প্রতিনির্দেশনা

যাদের এস্পাপ্লিফোজিন বা এর উপাদানের প্রতি অতিসংবেদনশীলতা রয়েছে এবং কিডনি সমস্যা ওডায়ালাইসিস রোগীদের ক্ষেত্রে ঔষধটি প্রতিনির্দেশিত।

সতর্কতা

এম্পাগ্নিফোজিন শুরু করার পূর্বে বৃদ্ধের সক্ষমতা নির্ণয় করার জন্য নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে এবং তারপর পর্যায়ক্রমে তা পর্যবেক্ষণে রাখতে হবে। যাদের GFR ৪৫ মিঃলিঃ/মি./১.৭৩ মি এর কম তাদের এম্পাগ্নিফ্লোজিন শুরু করা যাবে না। যে সকল রোগীর eGFR ৪৫ মিঃলিঃ/মি./১.৭৩ মি এর সমান বা তার বেশী তাদের ক্ষেত্রে ডোজ সমন্বয় করার প্রয়োজন নেই।|পেরিনিয়াম এ ন্যাক্রোটাইজিং ফ্যাসিটিস/ফোরনিয়ার’স গ্যাংগ্রীন হওয়ার ঝুঁকি থাকে যা খুবই বিরল। যদি জননেদ্ৰে অথবা জননেন্দ্রের পিছন হতে মলদ্বার পর্যন্ত নরমতা, লালভাব হওয়া বা ফোলাভাব এবং জ্বর ১০০.৪°ফাঃ এর বেশি হয় তাহলে অতি শীঘ্রই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

এমপা গ্নিফ্লোজিনের সাধারণ পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হল মূত্রনালীতে সংক্রমণ ও মহিলাদের জেনিটাল মাইকোটিক সংক্রমণ। এছাড়াও অন্যান্য পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলোর মধ্যে রয়েছে পানিশূন্যতা, হাই পোটেনশন, দুর্বলতা,মাথা ঘোরা এবং পিপাসা বৃদ্ধি।

গর্ভাবস্থায় ও স্তন্যদানকালে ব্যবহার

গর্ভবতী মহিলাদের ক্ষেত্রে এর ব্যবহারে সুনিয়ন্ত্রিত ও পর্যাপ্ত তথ্য নেই। সুতরাং কেবল সুনির্দিষ্টভাবে প্রয়োজন হলেই ব্যবহার করা উচিত। এম্পাগ্লিফ্লোজিন মাতৃদুগ্ধে নিঃসৃত হয় কিনা জানা যায়নি। স্তন্যদানকারী মায়েদের ব্যবহারে বিরত থাকতে হবে।

ঔষুধের মিথস্ক্রিয়া

ডাইইউরেটিক্স: এম্পাগ্নিফ্লোজিন ডাইইউরেটিক্সের সাথে দিলে প্রস্রাবের পরিমাণ বেড়ে যেতে পারে। ইনসুলিন এবং ইনসুলিন নিঃসরনকারী ঔষধ: এম্পাগ্লিফ্লোজিন ইনসুলিন এবং ইনসুলিন নিঃসরনকারী ঔষধের সাথে দিলে হাইপোগ্লাইসেমিয়ার প্রবণতা বেড়ে যেতে পারে।

প্রস্রাবে শর্করার উপস্থিতির পরীক্ষা: প্রস্রাবে শর্করার উপস্থিতির পরীক্ষার মাধ্যমে গ্লাইসেমিয়া নির্ধারণ করা যাবে না কারন যে সকল রোগী SGLT-2 নিচ্ছে তাদের প্রস্রাবে শর্করার মাত্রা বেড়ে যায় যেটা প্রস্রাবে শর্করার মাত্রা বেশী হিসেবে নির্ধারিত হয়। শর্করার মাত্রা নির্ধারণ করার জন্য বিকল্প পদ্ধতি ব্যবহার করতে হবে।

১,৫ অ্যানহাইড্রোগুসিল পরীক্ষার অসামঞ্জস্যতা: যারা SGLT-2 নিচ্ছে তাদের শর্করার নিয়ন্ত্রণ পরীক্ষা করার জন্য ১,৫ অ্যানহাইড্রোগুসিটল পরিমাপক হিসেবে বিশ্বাসযোগ্য নয়। শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য বিকল্প পদ্ধতি ব্যবহার করতে হবে।এমপা এর মাত্রাধিক ব্যবহারের ক্ষেত্রে সহায়ক ব্যবস্থা (অশোষিত পদার্থ পাকস্থলি থেকে অপসারন, ক্লিনিকাল পর্যবেক্ষন এবং সহায়ক চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে। এম্পাগ্লিফ্লোজিনের হেমোডায়ালাইসিস এর মাধ্যমে অপসারন করার বিষয় এখনও গবেষনা করা হয়নি।

মাত্রাধিক্যতা

এমপা এর মাধ্যমিক ব্যবহারিক ক্ষেত্রে সহায়ক ব্যবস্থা (অশোষিত পদার্থ পাকস্থলী থেকে অপসারণ, ক্লিনিকাল পর্যবেক্ষণ এবং সহায়ক চিকিৎসার ব্যবস্থা) গ্রহণ করতে হবে। এম্পাগ্লিফ্লোজিনের হোমো ডাইলোসিস এর মাধ্যমে অপসারণ করার বিষয় এখনো গবেষণা করা হয়নি

সংরক্ষণ

আলো ও আর্দ্রতা থেকে ঠান্ডা ও শুষ্ক স্থানে (৩০°সেঃ তাপমাত্রার নীচে) রাখুন। শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।

JM Joy Mozumder
৩ বছর ধরে বাংলা এবং ইংরেজি ভাষায় ব্লগিং এর সাথে যুক্ত রয়েছি ।এখন পর্যন্ত ৯৫ টি এর অধিক সাইট ডিজাইন করেছি এবং বর্তমানে ১৩টা সাইট নিয়ে কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।JM Joy Mozumder